1. jagonewsnarsingdi@gmail.com : nurchan :
সোমবার ২০শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ রাত ১১:২৫

নরসিংদীতে এবার আমন আবাদের লক্ষ্যমাত্রা পূরণ হবে

  • প্রকাশিতঃ রবিবার, ৫ সেপ্টেম্বর, ২০২১
  • ১০২ বার

নূরুল ইসলাম নূরচান

নরসিংদী জেলার মাঠে মাঠে এখন নয়ন জুড়ানো দৃশ্য। এ বছর বোরো ধানের ভালো ফলন এবং ন্যায্য মূল্য পাওয়ায় কৃষক এখন মহা ব্যস্ত হয়ে পড়েছেন আমন রোপণে। রোপা আমন ধানের চারা রোপণ চলছে। কোন কোন উপজেলায় আরো মাসাধিককাল আগে থেকেই রোপা আমন চারা রোপণ শুরু হয়েছে। সেসব জমিতে এখন ধান গাছ বেশ মোটাতাজা হয়ে উঠেছে। বর্তমানে এলাকার কৃষকদের মূল ব্যস্ততা আমন নিয়েই। পাওয়ার টিলার দিয়ে জমি চাষের পর চারা রোপণে পুরুষের পাশাপাশি নারীদেরও দেখা যাচ্ছে। আবার জমির আগাছা অপসারণ, বীজতলা থেকে চারা তোলার কাজে নারীদের বেশি দেখা যায়।

জেলা কৃষি অফিস সূত্রে জানা যায়, চলতি বছর রোপা আমন চাষে লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছে ৪০ হাজার ৬০০ হেক্টর জমিতে। এর মধ্যে রয়েছে হাইব্রিড, উপশি ও স্থানীয় জাতের আমন। বর্তমানে রোপন করা হয়েছে প্রায় ৩৬ হাজার হেক্টর জমি। এবার রোপা আমন ধানের চারার কোনো সংকট নেই। হাট-বাজারে প্রচুর চারা বিক্রি হচ্ছে। কৃষক চাহিদা মতো চারা কিনছেন। তাছাড়া কৃষক নিজেও বীজতলা তৈরি করে চারা উৎপাদন করেছেন।

নরসিংদী জেলায় সবচেয়ে বেশি আমন আবাদ হয় মনোহরদী ও রায়পুরা উপজেলায়। কৃষক জাকির হোসেন বলেন, প্রতি বছরের মতো এবারো জমি প্রস্তুত করে রোপা আমন রোপণ করা হচ্ছে। বিঘাপ্রতি খরচ ৮ থেকে ১০ হাজার টাকা। আর প্রতি বিঘায় ধান পাওয়া যায় ২০ থেকে ২৫ মণ। ১ থেকে দেড় মাস হলো বন্যার পানি না থাকায় এবারে কৃষক প্রচুর রোপা আমন রোপণ করা হয়েছে।

কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর নরসিংদীর উপপরিচালক শোভন কুমার ধর জানান, ‘এবার জেলায় আমন রোপণ লক্ষ্যমাত্রা ছাড়িয়ে যাবে। সাম্প্রতিককালে ধানের ন্যায্যমূল্য পাওয়ায় কৃষকরা অধীর আগ্রহ নিয়ে আমন ধান আবাদ করছেন। আমাদের প্রতিটি উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ বিভাগ থেকে কৃষকদেরকে সবধরনের সহযোগিতা করে আসছ। এছাড়া আমন ধান আবাদে সেচের কোন প্রয়োজন পড়ে না, ঘনঘন বৃষ্টি হচ্ছে, বৃষ্টির পানিতে মনের সুখে কৃষক আমন আবাদ করে চলেছেন। আগামী এক সপ্তাহের মধ্যে আমাদের লক্ষ্যমাত্রা পূরণ হয়ে যাবে।’

,

শেয়ার করুন
  • 126
  •  
  •  
  •  
  •  
    126
    Shares
আরো খবর.
© জাগো নরসিংদী ২৪ আইটি সহায়তাঃ সাব্বির আইটি
Customized By BlogTheme